আজ ২৪শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৮ই জুলাই, ২০২০ ইং

পরকীয়া প্রেমে আসক্ত

ইউছুফ আরমান

পরকীয়া প্রেম আসলে কি ?এবং কেন করে? বিয়ের পর স্বামী বা স্ত্রী ব্যতীত অন্য কোন পুরুষ বা মহিলার সাথে প্রেমকেই পরকীয়া প্রেম বলে। সমাজে এটা খুব খারাপ প্রভাব ফেলে।

মানব সমাজে কত ধরণের প্রেমই তো আছে! তবে যত ধরণের প্রেমই থাকুক না কেন ‘পরকীয়া’ প্রেমকে সবাই একটু ভিন্ন চোখে দেখে।

বর্তমান আমাদের সমাজে পরকীয়া প্রেম ব্যাপক ভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই ধরনের সম্পর্কগুলোতে আবেগীয় বিষয়টাই বেশি প্রাধান্য পায়।

আমাদের সমাজে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক একটি সামাজিক সমস্যা। যার নাম পরকীয়া। পরকীয়া প্রেমের অনেকগুলো গল্প আছে তবু আমি ক্ষুদ্র লেখকের প্রয়াস। পরকীয়ার উপর ভিত্তি করে কাল্পনিক এই গল্পটি সাজানো হয়েছে। কাকতালীয় ভাবে কারো জীবনে মিলে আমি দায়ী নয় তবে দুঃখিত।

নয়ন ও তনুর দাম্পত্য জীবন ভালোই চলছিল। হঠাৎ একটি মোবাইল ফোন তাদের সুখের সংসারকে তছনছ করে দেয়। গভীর রাতে ঘুমে আচ্ছন্ন নয়ন। তার মোবাইল ফোন বেজে উঠলো। তারপর নয়নের জীবনে নতুন আশার আলো জ্বলে। চোখে মুখে অন্যরকম সুখের অনুতূতি। তৃষ্ণার্ত ভালবাসার কংকাল।
নয়ন ও তনু দু’জনেই ছিল বিবাহিত । মোবাইলে কথা এরপর ফেসবুকে পরিচয়ে বন্ধুত্ব, এরপর ধীরে ধীরে সেই বন্ধুত্ব পৌঁছালো প্রেমে। সময় পেলেই দুজন ম্যাসেঞ্জারে চ্যাটিংয়ে ডুবে থাকেন তারা। নয়ন তনুর সাথে দেখা করতে চাইলো। তনুর পক্ষে দেখা করা সম্ভব নয় বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেয়। নয়নের একটু মন খারাপ।

এরপর একদিন তাদের মধ্যে চ্যাটিং হচ্ছে,

‘হ্যালো, নয়ন তোমার মন খারাপ? এতো দেরি করে রিপ্লাই দাও কেন? মন মানে না, জানু পাখি। তোমাকে ছাড়া এক মুহূর্তও ভালো লাগে না। আমার সারাক্ষণ শুধু তোমার নাম ধরে ডাকতে ইচ্ছা করে।

তনু ধীরে ধীরে লিখলো- শুধুই কি ডাকতে ইচ্ছা করে? আর কিছু না?

-কী ডাকতে ইচ্ছা করে?

জানু, জানু পাখি। সারাক্ষণ শুধু ডাকতেই ইচ্ছা করে প্রিয় প্রিয়। কিন্তু তারপরেও যে আমার তৃষ্ণা মেটে না।

-তোমার তৃষ্ণা মেটে কীসে?

তুমি জানো না? তোমাকে কতগুলো চুমু খেয়েছি জানো। মোট ২০০০টা। তারপরেও তৃষ্ণা মেটে না। প্রতিটি চুমুর পর নতুন তৃষ্ণা জাগে। প্রতিটি চুমুই মনে হয় নতুন। এভরি লাস্ট কিস ইজ ফার্স্ট কিস।

-বাহবা! প্রতিটি চুমু তুমি গুণে রেখেছো? এতো ভালোবাসো আমায়?

শুধুই কী চুমু গুণে রেখেছি। ছোট অভিসার, গভীর অভিসার। তোমার সবচেয়ে সুন্দর কি জানো?

-কী?

অবয়ব চেহারার, মধুর চাহনি।
ভালবাসার অতৃপ্তি, তোমার হাসি।

-তাই নাকি? সব হিসাব করে রেখেছো?

এইভাবে তাদের স্বাভাবিক জীবন যাত্রা স্তদ্ধ হয়ে যায়। এমন করে সংসারে অশান্তি নিয়ে আসে। আর নয়ন ও তনু ভালাবাসা পৃথিবীতে দৃষ্টান্ত করে যায়। আমার লেখা গল্প যদি পাঠক কে সামন্যতম আনন্দ দিতে পারে তাতে আমার লেখুনী স্বার্থক।

লেখকঃ- ইউছুফ আরমান, কলামিষ্ট, সাহিত্যিক, শিক্ষানবিশ আইনজীবী, ফাজিল, কামিল, বি.এ অনার্স, এম.এ, এলএল.বি। দক্ষিণ সাহিত্যিকাপল্লী, বিজিবি স্কুল সংলগ্ন রোড়, ০৬নং ওয়ার্ড, পৌরসভা, কক্সবাজার। ০১৬১৫-৮০৪৩৮৮
ই-মেইলঃ-yousufarmancox@gmail.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
Shares