আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২০ ইং

স্কুলের লাগোয়া ঘরবাড়ী দোকানপাত উচ্ছেদের নির্দেশ-প্রশাসনের

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

চকরিয়া উপজেলাস্হ ফাসিয়াঁখালী রেঞ্জের ডুলাহাজারা বনবিটের বনভূমির জায়গায় প্রতিষ্ঠিত রিংভং দক্ষিণ পাহাড় পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্দিষ্ট পরিমাণ জায়গাতে নির্মাণাধীন ঘরবাড়ী,দোকানপাত আগামী ১৩ অক্টোবরের মধ্যে সরিয়ে না নিলে উচ্ছেদ করা হবে বলে নির্দেশ দেন উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভুমি) তানভীর হোসেন।গত ৬ অক্টোবর বিকাল ৪ টার সময় স্কুল প্রাঙ্গনে এসে এ কথা বলেন।
এবিষয়ে উক্ত স্কুলের প্রধান শিক্ষক আওরঙ্গজেব সুজন জানান,আমি স্কুলের প্রধানের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে শিক্ষার্থীদের পাঠদানের চরম অসুবিধায় আছি।স্কুলে ৩টি রুমযুক্ত একটি ভবনে ৫র্ম শ্রেণী পর্যন্ত ক্লাস চালাতে বিপাকে পড়েছি।এছাড়া উক্ত স্কুলের পুরাতন আর একটি ভবন সাবেক স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা দখল করে নিয়েছেন। তাছাড়ও স্কুলের জায়গায় জোর-পূর্বক দোকানপাত নির্মাণ করে জায়গা দখলে নিয়েছে বলে আমি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করি।আবেদনের প্রেক্ষিতে আজকের এই তদন্ত।কারণ উক্ত স্কুলের জন্য নতুন একটি ভবন অনুমোদন হলেও জায়গা না থাকায় ভবনটির টেন্ডার ফিরে যায়।
তিনি আরো বলেন,স্কুলের নিদিষ্ট জায়গার পরিমাপ কতটুকু এর কোন কাগজপত্রের ফাইল আমি পাইনি।আমাকে সাবেক প্রধান কোন ফাইলপত্র বুঝিয়ে দেইনি। তবে আমি স্কুলের সাথে লাগোয়া যেগুলো রয়েছে আপাতত এর বিরুদ্ধে অভিযোগ করি।স্কুলের সঠিক জায়গা কতটুকু তার ফাইল সংগ্রহের প্রত্রুিয়ায় আছি।
তদন্তের বিষয়ে তদন্ত কর্মকর্তা উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভুমি) তানবীর হোসেন,শিক্ষা অফিসার গুলশান আক্তার ও সহকারী শিক্ষা অফিসার মোঃ আবু জাফর সরেজমিনে এসে স্কুলের সাথে লাগোয়া ঘরবাড়ী,দোকানপাত সরিয়ে না নিলে উচ্ছেদ করা হবে বলে দখলস্হ মালিকদেরকে নির্দেশ দিয়েছেন।অন্যথায় বনবিভাগ আগামী ১৩ অক্টোবর উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করবে,করার নির্দেশ দেন এ নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।
স্কুলের সাবেক প্রধান শিক্ষিকা হুমাইরা আজাদ জানান, আমি উক্ত স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ষড়যন্ত্র­ করে আমাকে স্কুল থেকে বের করে দিয়েছে। তবে আমি যে জায়গায় রয়েছি,তা স্কুলের জায়গা নহে।আমি নিজেই স্কুলের জন্য একটি ভবন পাওয়ার আবেদন দাখিল করেছিলাম। উক্ত আবেদনে স্কুলের জায়গা হিসেবে চৌহদ্দী অনুসারে ৩০ শতক জায়গার ম্যাপ উল্লেখ ছিল।এতে আমার দখলে থাকা জায়গাটি উল্লেখ নেই।কেন আমি এখান সরে যাব?তাই আমি স্কুলের আবেদীত ফাইল চেক করে জায়গা দাবি করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
Shares