চকরিয়ায় লবণ চাষি যুবককে জিম্মি করে টাকা দাবী

মোঃ নিজাম উদ্দিন, চকরিয়া:

চকরিয়ায় পাওনাদার সেজে টাকা দাবি করায় এক লবণ চাষি যুবক হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। জোরপূর্বক খালি স্টাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে মামলার পায়তারা চালাচ্ছে কথিত পাওনাদার। ভুক্তভোগীকে মোবাইলের ইমুতে মিথ্যা মামলা দায়ের, পত্রিকায় মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ পূর্বক মান ক্ষুন্ন করার এমনকি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হুমকি দিচ্ছে। এনিয়ে উভয় পক্ষে আইনি লিগ্যাল নোটিশের মাধ্যমে আইনগত জবাব প্রদান করে এবং স্বাক্ষর করা খালি স্টাম্পটি নিয়ে আইনি কার্যক্রম চলছে।

অভিযুক্ত চকরিয়ার হারবাং ইউনিয়নস্থ ৮নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবদু কুদ্দুসের ছেলে মোঃ বাবুল একজন ট্রাক গাড়ি চালক। ভুক্তভোগী একই উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড মধ্যম মেধা কচ্ছপিয়া এলাকার নুরুল আলমের ছেলে কুতুব উদ্দিন। পেশায় সে একজন লবণ চাষি বলে জানান।

ট্রাক চালক মোঃ বাবুলের পাঠানো লিগ্যাল নোটিশে জানা যায়, কুতুব উদ্দিন একজন হায়েস চালক। তার সাথে সুসম্পর্ক থাকায় বাবুল তার এলাকা হারবাং-এ কুতুব উদ্দিনকে তিন দিনের জন্য এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা হাওলাদ দেয়। পরে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রাখায় গত ১১ সেপ্টেম্বর তারিখে চকরিয়া থানা সেন্টার এলাকায় পরদিন টাকাগুলো দিয়ে দিবে মর্মে স্টাম্পের মাধ্যমে অঙ্গিকার নেন।

অপরদিকে কুতুব উদ্দিনের লিগ্যাল নোটিশের জবাব ও অভিযোগে জানান, তিনি কখনো গাড়ি চালক ছিলেন না। চালক দুরের কথা কখনো গাড়ির স্টিয়ারিংও ধরেননি। এমনকি হারবাং ইউনিয়নের ট্রাকচালক মোঃ বাবুল নামের কাউকে দেখেননি, চিনেনও না এবং কোনপ্রকার আর্থিক লেনদেনও ছিলনা। ঘটনারদিন রাত ৮ টার দিকে, একটি অভিযোগ দায়ের করতে চকরিয়া থানায় যায় কুতুব উদ্দিন।

থানায় কাজ সেরে ফেরার সময় থানা সেন্টার এলাকায় কথিত সাজানো পাওনাদার বাবুলের সহযোগী পৌরসভা ৩নং ওয়ার্ডের হাবিব নামের যুবক দলবল নিয়ে কুতুবকে আকস্মিক জিম্মি করে। ঘটনাকালে প্রচন্ড বৃষ্টির সময় হাবিব সাজানো পাওনাদার হারবাং-এর ট্রাক চালক মোঃ বাবুলকে ফোন দেয়। পরে বাবুলসহ ১০/১২ জনের একদল সন্ত্রাসী চারটি মোটরসাইকেল যোগে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এসময় অস্ত্রের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে কুতুব উদ্দিনকে তিনশ টাকা দামের খালি স্টাম্পে স্বাক্ষর দিতে বাধ্য করে। তারা এও সাফ জানিয়ে দেয় ওই খালী স্টাম্প নিয়ে আইনানুগ কোন কিছু করলে কুতুব উদ্দিনের মারাত্মক ক্ষয়ক্ষতি করবে।

বর্তমানে কুতুব উদ্দিনের মোবাইল ফোনে তাদের সহযোগীদের অনেকে ফোন করে টাকা দাবি করছে। টাকা না দিলে পথেঘাটে মারবে কাটবে, সাজানো অডিও ভিডিও দিয়ে ঘটনা সাজাবে, মিথ্যা মামলা দায়ের করবে, ইয়াবা টেবলেট দিয়ে চালান দিবে, লাশ গুম করে ফেলবে বলে হুমকি দিচ্ছে। এনিয়ে চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন ভুক্তভোগী কুতুব উদ্দিন। বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

এ ব্যপারে জানতে কথিত পাওনাদার ট্রাক চালক মোঃ বাবুলের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করে হলে তিনি জানান, কুতুবের সাথে গভীর পরিচয় সুবাদে তিন দিনের জন্য তাকেআদেড় লক্ষ টাকা হাওলাদ দেয়। গাড়ি কিনতে টাকাগুলো দিয়েছে। ওই সময় এতগুলো টাকা একসাথে দেওয়ার কোন লিখিত প্রমাণ না রাখার কারণ জানতে চাইলে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেনি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» নবাগত অফিসার ইনচার্জের সাথে বাংলাদেশ অটো বাইক শ্রমিক কল্যাণ সোসাইটি জেলা নেতৃবৃন্দের শুভেচ্ছা বিনিময়

» রংপুরে পুলিশ-গ্রামবাসীর সংঘর্ষের ঘটনায়, ৫ পুলিশ সদস্য ক্লোজড

» ভারতীয় কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী বাংলাদেশের বিজিবির হাতে আটক

» বার্সায় মেসির ১৫ বছর

» বিএনপি সরকারের রেল বন্ধের সিদ্ধান্ত ছিল দেশের জন্য আত্মঘাতী : প্রধানমন্ত্রী

» রাউজান উত্তর গুজরা জাগৃতি সংঘের বিজয়া সম্মেলন ও সঙ্গীতাঞ্জলি সম্পন্ন

» অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধিতে বিচার বিভাগের দ্রুত মামলা নিষ্পত্তি অপরিহার্য

» কক্সবাজার জেলা শ্রমিক লীগের বর্ধিত জরুরী সভা আহ্বান

» কক্সবাজার এলও শাখায় ৫ দালাল আটক!

» দুর্দান্ত খেলেও ভারতকে হারাতে পারল না বাংলাদেশ

সম্পাদক: অমিত চৌধুরী
নির্বাহী সম্পাদক: সেলিম হোসেন
বার্তা সম্পাদক: মোঃ শিলু পারভেজ
আন্তর্জাতিক সম্পাদক: এস এম মেহেদী

প্রধান কার্যালয়ঃ কালিয়াকৈর, গাজীপুর, বাংলাদেশ।

শাখা অফিসঃ  গোড়াই , মির্জাপুর , টাংগাইল, বাংলাদেশ ।

Mob: 01711113657,01611117887 bangladeshdainik@gmail.com

www.bangladeshdainik.com

Desing & Developed BY ZihadIT.Com
,

চকরিয়ায় লবণ চাষি যুবককে জিম্মি করে টাকা দাবী

মোঃ নিজাম উদ্দিন, চকরিয়া:

চকরিয়ায় পাওনাদার সেজে টাকা দাবি করায় এক লবণ চাষি যুবক হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। জোরপূর্বক খালি স্টাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে মামলার পায়তারা চালাচ্ছে কথিত পাওনাদার। ভুক্তভোগীকে মোবাইলের ইমুতে মিথ্যা মামলা দায়ের, পত্রিকায় মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ পূর্বক মান ক্ষুন্ন করার এমনকি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হুমকি দিচ্ছে। এনিয়ে উভয় পক্ষে আইনি লিগ্যাল নোটিশের মাধ্যমে আইনগত জবাব প্রদান করে এবং স্বাক্ষর করা খালি স্টাম্পটি নিয়ে আইনি কার্যক্রম চলছে।

অভিযুক্ত চকরিয়ার হারবাং ইউনিয়নস্থ ৮নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবদু কুদ্দুসের ছেলে মোঃ বাবুল একজন ট্রাক গাড়ি চালক। ভুক্তভোগী একই উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড মধ্যম মেধা কচ্ছপিয়া এলাকার নুরুল আলমের ছেলে কুতুব উদ্দিন। পেশায় সে একজন লবণ চাষি বলে জানান।

ট্রাক চালক মোঃ বাবুলের পাঠানো লিগ্যাল নোটিশে জানা যায়, কুতুব উদ্দিন একজন হায়েস চালক। তার সাথে সুসম্পর্ক থাকায় বাবুল তার এলাকা হারবাং-এ কুতুব উদ্দিনকে তিন দিনের জন্য এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা হাওলাদ দেয়। পরে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রাখায় গত ১১ সেপ্টেম্বর তারিখে চকরিয়া থানা সেন্টার এলাকায় পরদিন টাকাগুলো দিয়ে দিবে মর্মে স্টাম্পের মাধ্যমে অঙ্গিকার নেন।

অপরদিকে কুতুব উদ্দিনের লিগ্যাল নোটিশের জবাব ও অভিযোগে জানান, তিনি কখনো গাড়ি চালক ছিলেন না। চালক দুরের কথা কখনো গাড়ির স্টিয়ারিংও ধরেননি। এমনকি হারবাং ইউনিয়নের ট্রাকচালক মোঃ বাবুল নামের কাউকে দেখেননি, চিনেনও না এবং কোনপ্রকার আর্থিক লেনদেনও ছিলনা। ঘটনারদিন রাত ৮ টার দিকে, একটি অভিযোগ দায়ের করতে চকরিয়া থানায় যায় কুতুব উদ্দিন।

থানায় কাজ সেরে ফেরার সময় থানা সেন্টার এলাকায় কথিত সাজানো পাওনাদার বাবুলের সহযোগী পৌরসভা ৩নং ওয়ার্ডের হাবিব নামের যুবক দলবল নিয়ে কুতুবকে আকস্মিক জিম্মি করে। ঘটনাকালে প্রচন্ড বৃষ্টির সময় হাবিব সাজানো পাওনাদার হারবাং-এর ট্রাক চালক মোঃ বাবুলকে ফোন দেয়। পরে বাবুলসহ ১০/১২ জনের একদল সন্ত্রাসী চারটি মোটরসাইকেল যোগে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এসময় অস্ত্রের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে কুতুব উদ্দিনকে তিনশ টাকা দামের খালি স্টাম্পে স্বাক্ষর দিতে বাধ্য করে। তারা এও সাফ জানিয়ে দেয় ওই খালী স্টাম্প নিয়ে আইনানুগ কোন কিছু করলে কুতুব উদ্দিনের মারাত্মক ক্ষয়ক্ষতি করবে।

বর্তমানে কুতুব উদ্দিনের মোবাইল ফোনে তাদের সহযোগীদের অনেকে ফোন করে টাকা দাবি করছে। টাকা না দিলে পথেঘাটে মারবে কাটবে, সাজানো অডিও ভিডিও দিয়ে ঘটনা সাজাবে, মিথ্যা মামলা দায়ের করবে, ইয়াবা টেবলেট দিয়ে চালান দিবে, লাশ গুম করে ফেলবে বলে হুমকি দিচ্ছে। এনিয়ে চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন ভুক্তভোগী কুতুব উদ্দিন। বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

এ ব্যপারে জানতে কথিত পাওনাদার ট্রাক চালক মোঃ বাবুলের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করে হলে তিনি জানান, কুতুবের সাথে গভীর পরিচয় সুবাদে তিন দিনের জন্য তাকেআদেড় লক্ষ টাকা হাওলাদ দেয়। গাড়ি কিনতে টাকাগুলো দিয়েছে। ওই সময় এতগুলো টাকা একসাথে দেওয়ার কোন লিখিত প্রমাণ না রাখার কারণ জানতে চাইলে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেনি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

মাদক বিরোধী ও সমাজকল্যান মূলক সংগঠন ড্রীমক্লাবের সাথে যুক্ত হন

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক: অমিত চৌধুরী
নির্বাহী সম্পাদক: সেলিম হোসেন
বার্তা সম্পাদক: মোঃ শিলু পারভেজ
আন্তর্জাতিক সম্পাদক: এস এম মেহেদী

প্রধান কার্যালয়ঃ কালিয়াকৈর, গাজীপুর, বাংলাদেশ।

শাখা অফিসঃ  গোড়াই , মির্জাপুর , টাংগাইল, বাংলাদেশ ।

Mob: 01711113657,01611117887 bangladeshdainik@gmail.com

www.bangladeshdainik.com

Design & Developed BY ZahidITLimited