আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২০ ইং

কোটচাঁদপুরে সাংসদের টাকা খেয়ে নিলেন ইউনিয়ন কমিটির নেতা?


ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার তালিনা গ্রামে গত পহেলা বৈশাখ উদযাপন উপলক্ষে ৩ দিন ব্যাপী  কর্মসূচী গ্রহন করে তালিনা গ্রামের যুব সমাজ সহ ইকড়া, জালালপুর, চান্দেরপোল ও মাধবপুর এই পাঁচ গ্রামের যুবক ছেলেরা । এই পাঁচ গ্রামের যুবকেরা দফায় দফায় মিটিং করে এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিদের মাধ্যমে উক্ত ৩ দিনের পহেলা বৈশাখ উদযাপনে প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রন জানান ঝিনাইদহ (৩) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য এ্যড. শফিকুল আজম খান চঞ্চল।

পহেলা বৈশাখের ২য় দিনে ঝিনাইদহ (৩) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য এ্যড. শফিকুল আজম খান চঞ্চল, তালিনা গ্রামের পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন। সে সময় দল মত নির্বিশেষে এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ও পাঁচ গ্রামের যুবকেরা ব্যাপোক গণ সংবর্ধনার মাধ্যমে সংসদ সদস্য মহদয়কে বরণ করে নেন।

উৎসব উদযাপনের এ ব্যাপকতা দেখে মাননীয় সংসদ সদস্য প্রধান অতিথির বক্তব্যে পহেলা বৈশাখ উদযাপন অনুষ্ঠান সুন্দর ভাবে পরিচালনা করার জন্য ৫০ হাজার টাকা (তিন টন বরাদ্ধ) দেওয়ার ঘোষনা দেন।

জানা গেছে ঘোষনা অনুযায়ী এই টাকা সংসদ সদস্য কুশনা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ২ জন নেতা ও ১ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ (তালিনা+ইকড়া) এর ২ জন নেতার মাধ্যমে পহেলা বৈশাখ উদযাপন কমিটিরি কাছে প্রেরনের জন্য তিন টন গমের বাজেট দেন যার টাকার পরিমান দাড়ায় পঞ্চাশ  (৫০,০০০) হাজার । কিন্তু সংসদ সদ্যস্যের এই টাকা আজ কাল করে এখনো না দেওয়ায় এলাকায় ব্যাপোক আলোচনায় এসেছে। এই ঘটনায় খোদ আওয়ামীলীগের বৃহত অংশ ক্ষোভ প্রকাশ করে যুবকদের প্রাপ্য টাকা আত্বসাৎ এর তিব্র প্রতিবাদ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের মতবাদ ব্যাক্ত করছেন।

কাজল মাল (Kazol Mall) নামের কুশনা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের এক নেতা ফেসবুকে লিখেছেন, “তালিনা গ্রামের কিছু ছেলেরা পহেলা বৈশাখে মেলা বসায়, এবারো বসিয়েছিলো দাওয়াত ছিল মাননীয় সংসদ সদস্য কে। তিনি গিয়ে ছিলেন এবং যুব সমাজের ছেলেদের খরচের জন্য ৫০ হাজার টাকা বাজেট করেছিলো । মাননীয়সংসদ সদস্য , সেই টাকা ছেলেদের দেওয়ার জন্য কুশনা ইউনিয়নের দুই নেতার দ্বায়িত্ব ছিলো। তারা সেই টাকা ঐ দুই নেতা আর তালিনা গ্রামের দুই নেতা এই চাঁর নেতা মিলে ভাগ করে খেয়ে ফেলেছে। তাদের প্রাপ্য  হক মেরে দিয়েছে। এ সব চলছে।”

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে তালিনা গ্রামের টাকার ভাগ নিয়েছেন কোটচাঁদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ওলিয়ার রহমান শান্ত ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর রশিদ মুংলা ও আব্দুর রশিদ হেলা বিশ্বাস। তবে এ ব্যাপারে তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি  । ইউনিয়ন নেতাদের নাম বলতে পারেনি সূত্র। এ ব্যাপারে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের একটি পক্ষ মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানিয়েছে একাধীক সূত্র।

কাজল মাল (Kazol Mall) নামের কুশনা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের এক নেতা ফেসবুকে লিখেছেন, “তালিনা গ্রামের কিছু ছেলেরা পহেলা বৈশাখে মেলা বসায়, এবারো বসিয়েছিলো দাওয়াত ছিল মাননীয় সংসদ সদস্য কে। তিনি গিয়ে ছিলেন এবং যুব সমাজের ছেলেদের খরচের জন্য ৫০ হাজার টাকা বাজেট করেছিলো । মাননীয়সংসদ সদস্য , সেই টাকা ছেলেদের দেওয়ার জন্য কুশনা ইউনিয়নের দুই নেতার দ্বায়িত্ব ছিলো। তারা সেই টাকা ঐ দুই নেতা আর তালিনা গ্রামের দুই নেতা এই চাঁর নেতা মিলে ভাগ করে খেয়ে ফেলেছে। তাদের প্রাপ্য  হক মেরে দিয়েছে। এ সব চলছে।”

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে তালিনা গ্রামের টাকা আনার দায়িত্ব ছিলেন কোটচাঁদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ওলিয়াররেহমান শান্ত ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর রশিদ মুংলা। তবে ইউনিয়ন নেতাদের নাম বলতে রাজি হয়নি সূত্র।

পহেলা বৈশাখ উদযাপন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আব্দুর রশিদ হেলা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
Shares