নাগেশ্বরীতে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ৩০ কেজির বস্তায় ২৫ কেজি চাল

কচাকাটা (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:

কুড়িগ্রামের কচাকাটায় খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর আওতায় ১০ টাকা কেজি চাল বিতরণে কম দেয়ার অভিযোগ উঠেছে এক ডিলারের বিরুদ্ধে। সুবিধাভোগীদের অভিযোগ

৩০ কেজির বস্তায় চাল রয়েছে ২৫ থেকে ২৬ কেজি। প্রতিবারই ওই ডিলার এই রকম কম দিয়ে আসলেও কর্তৃপক্ষ দেখেও এড়িয়ে যাচ্ছে।

উপজেলার বল্লভের খাষ ইউনিয়নের গাবতলা এলাকার ডিলার মনিরুজ্জামান মনিরের

বিরুদ্ধে চাল কম দেয়ার অভিযোগ তোলেন সুবিধাভোগীরা। সুবিধাভোগীদের অভিযোগ প্রতি বস্তায় ৩০ কেজি চাল থাকলেও মনির নিজ গোডাউনে এনে ৪ থেকে ৫ কেজি চাল কৌশলে নামিয়ে রাখেন। পরে ওইসব বস্তা ৩০ কেজি ধরে ৩০০ টাকা নিয়ে গ্রাহকদের দেন।

আজ রবিবার সকালে গাবতলা বাজারে চাল বিতরণকালে সরেজমিনে গিয়ে বস্তায় ২৫ থেকে ২৬ কেজি চাল পাওয়া যায়। ইউনিয়নটির মোল্লাপাড়া গ্রামের সুবিধাভোগী আনসার আলী জানান, প্রতিবার তার

চাল কম পাচ্ছেন, অভিযোগ দিয়েও কোন লাভ হয় না। একই অভিযোগ ভিতরবন্দ গ্রামের সুবিধাভোগী মহির উদ্দিন, দেওয়ানজাগীর ছোমেদ আলী, চর বলারামপুরের বারেক ও মোল্লাপাড়ার হালিমা বেগমের। তারা বলেন, যা পাই তাই নিয়ে যাই, এছাড়া আমাদের মতো গরীবের আর কি করার আছে।

বিতরণকালে উপস্থিত ট্যাগ অফিসার উপসহকারী ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা শাহানুর ইসলাম চাল কম দেয়ার ব্যাপারে বলেন, ৩০ কেজির বস্তায় ৪/৫ কেজি চাল কম রয়েছে এমন দেখতে পেয়ে বিতরণ বন্ধ করার নির্দেশ দিলেও ডিলার মানেননি।

ডিলার মনির বলেন, আমরা যে রকম বস্তা উপজেলা গুদাম থেকে পেয়েছি সেরকমই

বিতরণ করছি। চাল কম আছে কিনা জানি না। ডিলার মনির ৪৬৩ জন সুবিধাভোগীর

বিপরিতে ১৩ হাজার ৮৯০ কেজি চাল উত্তোলন করেছেন।

গুদাম পরিদর্শক আশরাফুল ইসলাম জানান, আমরা সঠিক পরিমানে চাল দিয়েছি।

প্রতি বস্তায় ৩০ কেজির নিচে চাল থাকবে না। ৩০ কেজি করেই বিতরণ করতে হবে

ডিলারদের। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শংকর কুমার বিশ্বাস বলেন, চাল কম দেয়ার

সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অভিযোগ রয়েছে উপজেলায় সব ইউনিয়নে ২৮ কেজির বেশী চাল বিতরণ করা হয়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» রংপুরে পুলিশ-গ্রামবাসীর সংঘর্ষের ঘটনায়, ৫ পুলিশ সদস্য ক্লোজড

» ভারতীয় কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী বাংলাদেশের বিজিবির হাতে আটক

» বার্সায় মেসির ১৫ বছর

» বিএনপি সরকারের রেল বন্ধের সিদ্ধান্ত ছিল দেশের জন্য আত্মঘাতী : প্রধানমন্ত্রী

» রাউজান উত্তর গুজরা জাগৃতি সংঘের বিজয়া সম্মেলন ও সঙ্গীতাঞ্জলি সম্পন্ন

» অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধিতে বিচার বিভাগের দ্রুত মামলা নিষ্পত্তি অপরিহার্য

» কক্সবাজার জেলা শ্রমিক লীগের বর্ধিত জরুরী সভা আহ্বান

» কক্সবাজার এলও শাখায় ৫ দালাল আটক!

» দুর্দান্ত খেলেও ভারতকে হারাতে পারল না বাংলাদেশ

» চকরিয়ায় প্রশাসনের অভিযানে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

সম্পাদক: অমিত চৌধুরী
নির্বাহী সম্পাদক: সেলিম হোসেন
বার্তা সম্পাদক: মোঃ শিলু পারভেজ
আন্তর্জাতিক সম্পাদক: এস এম মেহেদী

প্রধান কার্যালয়ঃ কালিয়াকৈর, গাজীপুর, বাংলাদেশ।

শাখা অফিসঃ  গোড়াই , মির্জাপুর , টাংগাইল, বাংলাদেশ ।

Mob: 01711113657,01611117887 bangladeshdainik@gmail.com

www.bangladeshdainik.com

Desing & Developed BY ZihadIT.Com
,

নাগেশ্বরীতে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ৩০ কেজির বস্তায় ২৫ কেজি চাল

কচাকাটা (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:

কুড়িগ্রামের কচাকাটায় খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর আওতায় ১০ টাকা কেজি চাল বিতরণে কম দেয়ার অভিযোগ উঠেছে এক ডিলারের বিরুদ্ধে। সুবিধাভোগীদের অভিযোগ

৩০ কেজির বস্তায় চাল রয়েছে ২৫ থেকে ২৬ কেজি। প্রতিবারই ওই ডিলার এই রকম কম দিয়ে আসলেও কর্তৃপক্ষ দেখেও এড়িয়ে যাচ্ছে।

উপজেলার বল্লভের খাষ ইউনিয়নের গাবতলা এলাকার ডিলার মনিরুজ্জামান মনিরের

বিরুদ্ধে চাল কম দেয়ার অভিযোগ তোলেন সুবিধাভোগীরা। সুবিধাভোগীদের অভিযোগ প্রতি বস্তায় ৩০ কেজি চাল থাকলেও মনির নিজ গোডাউনে এনে ৪ থেকে ৫ কেজি চাল কৌশলে নামিয়ে রাখেন। পরে ওইসব বস্তা ৩০ কেজি ধরে ৩০০ টাকা নিয়ে গ্রাহকদের দেন।

আজ রবিবার সকালে গাবতলা বাজারে চাল বিতরণকালে সরেজমিনে গিয়ে বস্তায় ২৫ থেকে ২৬ কেজি চাল পাওয়া যায়। ইউনিয়নটির মোল্লাপাড়া গ্রামের সুবিধাভোগী আনসার আলী জানান, প্রতিবার তার

চাল কম পাচ্ছেন, অভিযোগ দিয়েও কোন লাভ হয় না। একই অভিযোগ ভিতরবন্দ গ্রামের সুবিধাভোগী মহির উদ্দিন, দেওয়ানজাগীর ছোমেদ আলী, চর বলারামপুরের বারেক ও মোল্লাপাড়ার হালিমা বেগমের। তারা বলেন, যা পাই তাই নিয়ে যাই, এছাড়া আমাদের মতো গরীবের আর কি করার আছে।

বিতরণকালে উপস্থিত ট্যাগ অফিসার উপসহকারী ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা শাহানুর ইসলাম চাল কম দেয়ার ব্যাপারে বলেন, ৩০ কেজির বস্তায় ৪/৫ কেজি চাল কম রয়েছে এমন দেখতে পেয়ে বিতরণ বন্ধ করার নির্দেশ দিলেও ডিলার মানেননি।

ডিলার মনির বলেন, আমরা যে রকম বস্তা উপজেলা গুদাম থেকে পেয়েছি সেরকমই

বিতরণ করছি। চাল কম আছে কিনা জানি না। ডিলার মনির ৪৬৩ জন সুবিধাভোগীর

বিপরিতে ১৩ হাজার ৮৯০ কেজি চাল উত্তোলন করেছেন।

গুদাম পরিদর্শক আশরাফুল ইসলাম জানান, আমরা সঠিক পরিমানে চাল দিয়েছি।

প্রতি বস্তায় ৩০ কেজির নিচে চাল থাকবে না। ৩০ কেজি করেই বিতরণ করতে হবে

ডিলারদের। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শংকর কুমার বিশ্বাস বলেন, চাল কম দেয়ার

সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অভিযোগ রয়েছে উপজেলায় সব ইউনিয়নে ২৮ কেজির বেশী চাল বিতরণ করা হয়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

মাদক বিরোধী ও সমাজকল্যান মূলক সংগঠন ড্রীমক্লাবের সাথে যুক্ত হন

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক: অমিত চৌধুরী
নির্বাহী সম্পাদক: সেলিম হোসেন
বার্তা সম্পাদক: মোঃ শিলু পারভেজ
আন্তর্জাতিক সম্পাদক: এস এম মেহেদী

প্রধান কার্যালয়ঃ কালিয়াকৈর, গাজীপুর, বাংলাদেশ।

শাখা অফিসঃ  গোড়াই , মির্জাপুর , টাংগাইল, বাংলাদেশ ।

Mob: 01711113657,01611117887 bangladeshdainik@gmail.com

www.bangladeshdainik.com

Design & Developed BY ZahidITLimited