অভিযানের নামে মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ করছে মিয়ানমার: অ্যামনেস্টি

রাখাইন রাজ্যে মিয়ানমার সেনাবাহিনী মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ করেছে এবং তাদের কাছে এমন শক্ত প্রমাণ রয়েছে যাতে আটাই প্রমানিত হয় বলে জানিয়েছে লন্ডনভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

বুধবার রাখাইন রাজ্যের পরিস্থিতির ওপর একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এই প্রতিবেদনে নির্যাতিত সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা দের বিরুদ্ধে অভিযানের নামে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর গণহত্যা, নির্যাতন, ধর্ষণ ও জোর করে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিতাড়নের বিস্তারিত তথ্য উঠে এসেছে।

মিয়ানমারে রোহিঙ্গারা মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের লক্ষ্যে পরিণত’ শীর্ষক প্রতিবেদনে পাতার পর পাতা বর্ণনায় গণহত্যা, ধর্ষণ, খুন, নির্যাতন ও গ্রাম জ্বালিয়ে দেওয়ার ভয়াবহ চিত্র তুলে ধরেছে অ্যামনেস্টি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হাজার হাজার রোহিঙ্গা পুরুষ, নারী ও শিশু ব্যাপক হারে নিয়মতান্ত্রিক হামলার শিকার হয়েছে এবং মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী ওই অঞ্চলে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে হামলা চালিয়েছে। অ্যামনেস্টি জানিয়েছে, মিয়ানমার সরকারের সঙ্গে এ বিষয়ে যোগাযোগের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। এর আগে দেশটির কর্মকর্তারা নিয়মতান্ত্রিক নিপীড়নের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেন। তাদের মতে, রোহিঙ্গারা বাংলাদেশ থেকে আসা অবৈধ অভিবাসী।

অ্যামনেস্টির মিয়ানমার বিষয়ক গবেষক লরা হাইগ বলেছেন, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে অপরাধের যেসব তথ্য-প্রমাণ তারা নথিভুক্ত করেছেন, তা অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে করা দেশটির সেনবাহিনীর নির্যাতনের সঙ্গে তুলনীয়। কাচিন, শান ও পালংসহ অন্যান্য সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধেও তারা একই ধরনের অপরাধ করেছে।

তিনি বলেছেন, সেনাবাহিনী পুরোপুরি জবাবদিহীর বাইরে, প্রায়ই বেপরোয়া এবং তারা দায়মুক্ত, যা তাদের আরো দায়মুক্তির পথ করে দেয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘এসব বন্ধ করার সময় এখন।’

গত সোমবার দেশটির সেনাপ্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং জাতিসংঘ কর্মকর্তাদের বলেন, তার সেনারা আরসার আক্রমণের জবাবে বৈধ অভিযান পরিচালনা করছে।

এদিকে বুধবার মিয়ানমারের ঘনিষ্ঠ মিত্র চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এশিয়া বিষয়ক বিশেষ দূত সান গুশিয়াংয়ের সাথে একটি সাক্ষাৎ শেষে তার ফেসবুক পোস্টে বাংলাদেশে পালিয়ে যাওয়া ‘বাঙালিদের’ (মিয়ানমারের মতে রোহিঙ্গারা বাঙালি) নিয়ে যে খবর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশ হচ্ছে সেগুলোকে অতিরঞ্জন ও অসত্য বলেছেন মিয়ানমারের সেনাপ্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং। নিউজ ডেস্ক-মেহেদী 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» রংপুরে পুলিশ-গ্রামবাসীর সংঘর্ষের ঘটনায়, ৫ পুলিশ সদস্য ক্লোজড

» ভারতীয় কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী বাংলাদেশের বিজিবির হাতে আটক

» বার্সায় মেসির ১৫ বছর

» বিএনপি সরকারের রেল বন্ধের সিদ্ধান্ত ছিল দেশের জন্য আত্মঘাতী : প্রধানমন্ত্রী

» রাউজান উত্তর গুজরা জাগৃতি সংঘের বিজয়া সম্মেলন ও সঙ্গীতাঞ্জলি সম্পন্ন

» অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধিতে বিচার বিভাগের দ্রুত মামলা নিষ্পত্তি অপরিহার্য

» কক্সবাজার জেলা শ্রমিক লীগের বর্ধিত জরুরী সভা আহ্বান

» কক্সবাজার এলও শাখায় ৫ দালাল আটক!

» দুর্দান্ত খেলেও ভারতকে হারাতে পারল না বাংলাদেশ

» চকরিয়ায় প্রশাসনের অভিযানে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

সম্পাদক: অমিত চৌধুরী
নির্বাহী সম্পাদক: সেলিম হোসেন
বার্তা সম্পাদক: মোঃ শিলু পারভেজ
আন্তর্জাতিক সম্পাদক: এস এম মেহেদী

প্রধান কার্যালয়ঃ কালিয়াকৈর, গাজীপুর, বাংলাদেশ।

শাখা অফিসঃ  গোড়াই , মির্জাপুর , টাংগাইল, বাংলাদেশ ।

Mob: 01711113657,01611117887 bangladeshdainik@gmail.com

www.bangladeshdainik.com

Desing & Developed BY ZihadIT.Com
,

অভিযানের নামে মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ করছে মিয়ানমার: অ্যামনেস্টি

রাখাইন রাজ্যে মিয়ানমার সেনাবাহিনী মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ করেছে এবং তাদের কাছে এমন শক্ত প্রমাণ রয়েছে যাতে আটাই প্রমানিত হয় বলে জানিয়েছে লন্ডনভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

বুধবার রাখাইন রাজ্যের পরিস্থিতির ওপর একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এই প্রতিবেদনে নির্যাতিত সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা দের বিরুদ্ধে অভিযানের নামে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর গণহত্যা, নির্যাতন, ধর্ষণ ও জোর করে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিতাড়নের বিস্তারিত তথ্য উঠে এসেছে।

মিয়ানমারে রোহিঙ্গারা মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের লক্ষ্যে পরিণত’ শীর্ষক প্রতিবেদনে পাতার পর পাতা বর্ণনায় গণহত্যা, ধর্ষণ, খুন, নির্যাতন ও গ্রাম জ্বালিয়ে দেওয়ার ভয়াবহ চিত্র তুলে ধরেছে অ্যামনেস্টি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হাজার হাজার রোহিঙ্গা পুরুষ, নারী ও শিশু ব্যাপক হারে নিয়মতান্ত্রিক হামলার শিকার হয়েছে এবং মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী ওই অঞ্চলে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে হামলা চালিয়েছে। অ্যামনেস্টি জানিয়েছে, মিয়ানমার সরকারের সঙ্গে এ বিষয়ে যোগাযোগের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। এর আগে দেশটির কর্মকর্তারা নিয়মতান্ত্রিক নিপীড়নের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেন। তাদের মতে, রোহিঙ্গারা বাংলাদেশ থেকে আসা অবৈধ অভিবাসী।

অ্যামনেস্টির মিয়ানমার বিষয়ক গবেষক লরা হাইগ বলেছেন, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে অপরাধের যেসব তথ্য-প্রমাণ তারা নথিভুক্ত করেছেন, তা অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে করা দেশটির সেনবাহিনীর নির্যাতনের সঙ্গে তুলনীয়। কাচিন, শান ও পালংসহ অন্যান্য সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধেও তারা একই ধরনের অপরাধ করেছে।

তিনি বলেছেন, সেনাবাহিনী পুরোপুরি জবাবদিহীর বাইরে, প্রায়ই বেপরোয়া এবং তারা দায়মুক্ত, যা তাদের আরো দায়মুক্তির পথ করে দেয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘এসব বন্ধ করার সময় এখন।’

গত সোমবার দেশটির সেনাপ্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং জাতিসংঘ কর্মকর্তাদের বলেন, তার সেনারা আরসার আক্রমণের জবাবে বৈধ অভিযান পরিচালনা করছে।

এদিকে বুধবার মিয়ানমারের ঘনিষ্ঠ মিত্র চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এশিয়া বিষয়ক বিশেষ দূত সান গুশিয়াংয়ের সাথে একটি সাক্ষাৎ শেষে তার ফেসবুক পোস্টে বাংলাদেশে পালিয়ে যাওয়া ‘বাঙালিদের’ (মিয়ানমারের মতে রোহিঙ্গারা বাঙালি) নিয়ে যে খবর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশ হচ্ছে সেগুলোকে অতিরঞ্জন ও অসত্য বলেছেন মিয়ানমারের সেনাপ্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং। নিউজ ডেস্ক-মেহেদী 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

মাদক বিরোধী ও সমাজকল্যান মূলক সংগঠন ড্রীমক্লাবের সাথে যুক্ত হন

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক: অমিত চৌধুরী
নির্বাহী সম্পাদক: সেলিম হোসেন
বার্তা সম্পাদক: মোঃ শিলু পারভেজ
আন্তর্জাতিক সম্পাদক: এস এম মেহেদী

প্রধান কার্যালয়ঃ কালিয়াকৈর, গাজীপুর, বাংলাদেশ।

শাখা অফিসঃ  গোড়াই , মির্জাপুর , টাংগাইল, বাংলাদেশ ।

Mob: 01711113657,01611117887 bangladeshdainik@gmail.com

www.bangladeshdainik.com

Design & Developed BY ZahidITLimited